আত্মজীবনীতে উইংস অব ফায়ার

Reading Time: < 1 minute

সেই হাতই সুন্দর, যে কাজ করে আন্তরিকভাবে, সৎভাবে, সাহস ভরে, মুহূর্ত থেকে মুহূর্তে, সারাদিন ধরে”- পড়ছিলাম শেখ সেলিমের অনুবাদে অরুন তিওয়ারীর সহযোগিতায় প্রকাশিত পদ্ম ভূষণ, পদ্মবিভূষণ এবং ভারত রত্ম উপাধি পাওয়া ইন্ডিয়ার ১১তম প্রেসিডেন্ট (২০০২-২০০৭)এ, পি, জে, আবদুল কালামের “উইংস অব ফায়ার” বইটি। মূলত এটি একটি আত্মজীবনী যেখানে স্থান পেয়েছে লেখকের বাল্যকাল, মিসাইল কর্মসূচি আর ইন্ডিয়ান মহাকাশ গবেষণা নিয়ে লেখকের একের পর এক ব্যর্থতা এবং সফলতা।

প্রারম্ভিক আলোচনায় ধর্মের প্রতি লেখকের দৃষ্টিভঙ্গি, বাবা-মা এবং প্রতিবেশীদের মুসলিম ধর্মের প্রতি অগাধ বিশ্বাসী মনোভাব উঠে এসেছে। পরবর্তীতে উল্লেখ করা হয়েছে কৈশোরে স্বপ্ন বুপন করা আবদুল কালামের এরোনেটিকেল ডেবলাপমেন্ট ইস্টাবলিশমেন্ট এর কর্মঠ জীবন। যেখানে হোভারক্রাফ্ট পরিকল্পনার মাধ্যমে লেখক সুযোগ পেয়েছেন ইন্ডিয়ান মহাকাশ গবেষণা সেন্টার আর সেখান থেকে পেয়েছেন “নাসা” য় প্রশিক্ষন করার সুযোগ।

বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য নি:সন্দেহে অত্যন্ত আকর্ষণীয় এ বইটি। কারন বইটির সত্তোর শতাংশ ই হচ্ছে বিজ্ঞান এবং প্রযুক্তিগত তথ্যরাশি। তবে ভবগুরে থেকে শুরু করে শৃঙ্খলাবদ্ধ জীবনযাপনকারী প্রতিটি তরুন তরুণীর জন্য স্বপ্ন বাস্তবায়নে উৎসাহ মুলক একটি বই উইংস অব ফায়ার।

Spread the love

Related Posts

Add Comment

error: Content is protected !!