ক্লাসিক্যাল গ্রিক পিরিয়ড (৮০০ খ্রি.পূ.-২০০ খ্রি.পূ.): পরবর্তী যুগের সাহিত্যে প্রভাব

Reading Time: 2 minutes

গ্রিক লেখক, নাট্যকার, কবি, মহাকবি আর দার্শনিকদের সম্মিলন সময়টাকে এমন এক মহিমা দেয়, যার সঙ্গে কয়েক হাজার বছর ধরে অন্য যুগগুলোর তুলনা করা হয়ে আসছে। কয়েকজনের নাম নিলেই সে যুগের ভারটা খানিক বোঝা যাবে। যেমন— এশপ, প্লাতো, সক্রেতিস, অ্যারিস্টটল, ইউরিপিদিস, সফোক্লিস, অ্যারিস্টফিনিস এমন কয়েকটি নাম। খ্রিস্টপূর্ব পঞ্চম শতক (৪৯৯ খ্রি.পূ.-৪০০ খ্রি.পূ.) সময়টা ‘গ্রিসের সোনালি অধ্যায়’ হিসেবে সুপরিচিত। রাষ্ট্রবিজ্ঞানের ক্ষেত্রেও সে সময়টা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। সে সময়টাতে নগররাষ্ট্র গড়ে উঠছিল, গণতান্ত্রিক চেতনা জাগ্রত হচ্ছিল। বিশ্বের কিছু সুন্দরতম ও মহত্তম শিল্পকলা, কবিতা, নাটক, স্থাপত্য ও দর্শনের জন্ম হয় এথেন্সে। সভ্যতার একটি সুন্দরী রাণী হচ্ছে এথেন্স।

রোমান দর্শন, সাহিত্য, শিল্পকলা শুধু রোমান সভ্যতাকেই প্রভাবিত করেনি তৎপরবর্তী সবগুলো সভ্যতাকেই প্রভাবিত করেছে এবং আজ অবধি আমরা তার প্রভাব থেকে মুক্ত নই। ‘গ্রিক ইনফ্লুয়েন্স অন ইংলিশ পোয়েট্রি’ বইয়ে জন চার্টন কলিন্স দাবি করেন, রোমানরা সব ধরণের কবিতার ক্ষেত্রেই গ্রিক মডেল অনুসরণ করেছেন। রোমান মহাকাব্য ঈনিদ ও থেবাইদ গ্রিক মহাকাব্য ইলিয়াদ ও অডিসি অনুসরণেই লেখা।আরো স্পষ্ট করে বললে ঈনিদের প্রথম ছয়টি সর্গ ইলিয়াদকে অনুসরণ করে লেখা এবং শেষ ছয়টি সর্গ অডিসি অনুসরণ করে লেখা।

এসকাইলাস, সফোক্লিস ও ইউরিপিদিস

এসকাইলাস, সফোক্লিস ও ইউরিপিদিস

রোমান ট্রাজেডিগুলোও গ্রিক ওস্তাদ নাট্যকার বিশেষ করে এসকাইলাস, সফোক্লিস ও ইউরিপিদিস ত্রয়ীর অনুসরণে লেখা।রোমান কবিরাও গ্রিক ঋনের কথা নির্দ্বিধায় স্বীকার করেছেন এমনকি এ নিয়ে গর্ববোধ করেছেন।রোমান কবি হোরেসের সরল স্বীকারোক্তি, ‘পরাজিত গ্রীকরা গেঁয়ো ল্যাটিন ভাষার সৌকর্য্য বাড়িয়েছেন।’

রোমান নাট্যকার ও দার্শনিক সেনেকার ট্রাজেডিগুলো গ্রীক ট্রাজেডির অনুসরণে লেখা যেগুলো ইতালিয়ান ট্রাজেডিকে প্রভাবিত করেছে।ইংরেজি সাহিত্যের সোনালী যুগ হিসেবে খ্যাত এলিজাবেথীয় যুগে মার্লো, শেক্সপিয়রের ট্রাজেডিতে সেনেকার ট্রাজেডি এবং সেই সূত্রে গ্রীক ট্রাজেডির অবদান স্বীকৃত। ক্রিস্টোফার মার্লোর উপর গ্রীক নাটকের প্রভাব নিয়ে জন চার্টন কলিন্সের উক্তি-‘স্টাইলের (প্রকাশভঙ্গি, গাঁথুনি) দিক থেকে মার্লোর মতো গ্রিক এলিজাবেথীয় কবিদের মধ্যে আর কেউ নেই।’(Among the Elizabethan poets there is no poet so Greek in style as Marlowe)

রোমান মহাকাব্যগুলোর মতো ইংরেজি সাহিত্যের মহাকাব্যগুলোতেও গ্রিক মহাকাব্যের প্রভাব সুস্পষ্ট। ইংরেজি কবিতার প্রথম দিককার মহাকাব্য এডমান্ড স্পেন্সারের ‘দ্য ফেয়ারি কুইন’ থেকে স্পষ্ট প্রতীয়মান হয় এলিজাবেথীয় এই কবি গ্রিক ভাষা ও সাহিত্য সম্পর্কে পুরোপুরি ওয়াকিবহাল ছিলেন।পুরো কাব্যটিই আমাদেরকে হোমার বিশেষ করে তার ‘অডিসি’কে স্মরণ করিয়ে দেবে।তারপর যদি আমরা ইংরেজি সাহিত্যের সবচেয়ে সেরা মহাকাব্য ‘প্যারাডাইস লস্ট’-এর দিকে তাকাই তাহলে দেখতে পারবো গ্রিক কবিদের কাছে কতটুকু ঋনী ছিলেন জন মিল্টন।প্যারাডাইস লস্টের বুনন কাঠামো ঈনিদের মতোই-ইলিয়াদ ও অডিসির অনুকরণে বুনা।কেন্দ্রীয় চরিত্র স্যাটান অনেকটা এসকাইলাসের প্রমিথিউসের অনুকরণে নির্মাণ করা। মহাকাব্যটির ষষ্ঠ সর্গে যুদ্ধের দৃশ্যগুলো ইলিয়াদের যুদ্ধের দৃশ্যগুলোর প্যারোডি করে লেখা।প্যারাডাইস লস্টের পতিত স্বর্গীয় দূত সর্দারগণ যেন ইলিয়াদের গ্রিক নেতৃবৃন্দ।

হোমার ছবি: অ্যানশিয়েন্ট হিস্ট্রি এনসাইক্লোপেডিয়া

হোমার ছবি: অ্যানশিয়েন্ট হিস্ট্রি এনসাইক্লোপেডিয়া

ভিক্টোরীয় যুগের পোয়েট লরিয়েট আলফ্রেড টেনিসন কবিতার বিষয়বস্তু, প্রকরণ নির্ধারণ করার ক্ষেত্রে ফিরে গিয়েছেন গ্রিক-রোমান সাহিত্যের কাছেই। তার সেরা তিনটি কবিতার শিরোনাম দেখুন-ইউলিসিস, টিথোনাস ও টাইরেসিয়াস।

ইংরেজি সাহিত্যের ইতিহাস

প্রকাশনা: আদর্শ

Spread the love

Related Posts

Add Comment

error: Content is protected !!