সিভি লেখার সময় এড়িয়ে চলুন এ ছয়টি ভুল

Reading Time: 2 minutes

আপনার সিভি আপনার সম্ভাব্য কর্মসংস্থানকারীদের সাথে সম্পর্ক স্থাপন করে, আপনাকে নিয়ে তাদের আগ্রহ জাগিয়ে তোলে। আবার আপনার সিভি দেখেই সম্ভাব্য তালিকা থেকে বাদ করে দিতে পারে। এজন্য সিভি লেখা ও সিভি পাঠানোর সময় এ বিষয়গুলো খেয়াল রাখতে হবে। সফল ও সুন্দর সিভি লেখার জন্য মনে রাখতে পারেন এ ছয়টি বিষয়।

বানান ভুল এড়িয়ে চলুন

প্রথম দেখাতেই আপনার সিভিতে যদি একাধিক বানান ভুল দেখা যায় তাহলে আপনাকে হয়তো সংক্ষিপ্ত তালিকা থেকে প্রথমেই বাদ দেওয়া হয়ে যাবে। আপনি বানানের ব্যাপারে সতর্ক নন মানে আপনি আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে সতর্ক নন। দরকার হলে অভিজ্ঞ কারো কাছ থেকে সাহায্য নিয়ে বানান ভুল ঠেকান।

গোলমেলে উদ্দেশ্য ও অতি পরিচিত বুলি ব্যবহার থেকে দূরে থাকুন

‘একটি চ্যালেঞ্জিং পজিশনে কাজ করতে চাই, পেশাগতভাবে নিজেকে বিকশিত করতে চাই’ ইত্যাদি বিভিন্ন উদ্দেশ্য বা অতি পরিচিত বুলি দেখা যায় সিভিতে। কোন প্রতিষ্ঠান প্রথমত চায় আপনি প্রতিষ্ঠানকে কী প্রদান করতে সক্ষম তার প্রমাণ। আপনার দক্ষতা সে প্রতিষ্ঠানে লাভ নিয়ে আসতে হবে তাহলেই আপনার প্রতি তারা আগ্রহ দেখাবে। এজন্য আপনার ‘যোগাযোগ ক্ষমতা অসাধারণ’ ‘চাপের মধ্যে ভালো কাজ করতে সক্ষম’ ইত্যাদি পরিচিত বুলি ব্যবহার না করে আপনার অতীত কর্মকাণ্ডে কখন তার প্রমাণ দিয়েছেন সেগুলো নিয়ে বলুন।

অতিরঞ্জন এড়িয়ে চলুন

চাকুরী বাগিয়ে নেওয়ার জন্য অনেকেই নিজেকে নিয়ে অতিরঞ্জন করা, নিজের অতীত নিয়ে মিথ্যা বলা ইত্যাদি করে থাকে। কিন্তু এই যুগে আপনাকে নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো খুঁজে বের করা খুব কঠিন নয়। আপনার রেফারেন্স পার্সনের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় তথ্য জেনে নেওয়া, আপনার ফেসবুক-টুইটার-ব্লগ ঘেটে আপনার বিত্তান্ত জেনে নেওয়া খুবই সহজ একটি কাজ। আর আপনার সিভি দু-পৃষ্ঠার বেশি দরকার নেই। আপনার চাকুরীদাতাদের মহাকাব্য পড়ার সময় নেই। তবে সিভি ছোট রাখতে গিয়ে আপনি যেন প্রয়োজনীয় তথ্য বাদ দিয়ে না দেন!

সহজ ফরম্যাট ব্যবহার করুন

আপনার সিভিটিকে রংটং দিয়ে সাজানোর দরকার নেই। এর ফন্ট, কাগজ, টেক্সট সাইজ সব সাধারণ রাখুন। সাধারণ জিনিসই অসাধারণ এসব ক্ষেত্রে। পড়ার ক্ষেত্রে যেন কোন বাধা না আসে সেদিকে খেয়াল রাখবেন। সিভিতে অতিরিক্ত রংঢংয়ের ব্যবহার চাকুরীদাতাদের মাথা ব্যথার কারণ হতে পারে। হতে পারে আপনার সিভি পড়ার কোন আগ্রহই পাচ্ছে না।

আরেকজনের সিভি কপি করবে না

অন্যজনের সিভিতে নিজের নাম বসিয়ে দেওয়া খুব সহজ এবং অনেকেই এটা করে থাকে। আপনার ব্যক্তিগত সিভিতে আপনার জীবন, কর্মকাণ্ড, অর্জনই প্রাধান্য পাবে। অন্যের সিভি নকল করলে সেটা সহজেই ধরা যায়। আপনার সিভিটা যদি এক পৃষ্ঠারও হয় সেটা যেন অরিজিনাল হয়, আপনার কথা ও কাজের কথা বলে সেদিকে খেয়াল করবেন।

সূত্র: টাইমস্ অব ইন্ডিয়া

Spread the love

Related Posts

Add Comment

error: Content is protected !!